চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা: প্রশাসন ও রাজনৈতিক নেতাদের প্রভাব

0
186
চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা

চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা: গাজীপুর মহানগরের ৩৫ নং ওয়ার্ডেও বোর্ডবাজার এলাকায় আদি গ্রুপ অফ কোম্পানি লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে চাকরী দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। বিভিন্ন কৌশলে কিংবা দালালের মাধ্যমে চাকরী প্রার্থীদের সাথে যোগযোগ করে প্রথমে কোন টাকা লাগবেনা বললেও তথাকথিত ট্রেনিংয়ের নামে জনপ্রতি ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা নেওয়া হয়।

এদিকে চাকরীপ্রার্থী কয়েকজন বলেন, আমরা ২ থেকে ৩ হাজার টাকা করে দিয়েছি বাকী টাকা চাওয়া হলে আমরা অপারগতা প্রকাশ করি এবং আমাদের পূর্বের টাকা ফেরত চাইলে আমাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং প্রাণে মেরে ফেলার হুমকী দেয়।

এ বিষয়ে অফিসের একজন কর্মকর্তা বলেন, আমরা পোশাক, জুতা এবং ট্রেনিংয়ের খরচ বাবদ ২ হাজার ৫শত টাকা করে জনপ্রতি নিচ্ছি এবং ট্রেনিয়ের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠনে যোগাযোগের করে চাকরী প্রদান করছি।সুতরাং এক্ষেত্রে কোন প্রতারণা করা হচ্ছেনা।

এদিকে প্রতারণার শিকার চাকরী প্রার্থীদের অভিযোগের ভিত্তিতে অফিসটি তালাবদ্ধ করে দেয় জি এম পির গাছা থানা পুলিশ এবং বেশ কয়েকজন চাকরী প্রার্থীর টাকা ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।

এদিকে প্রতারণার শিকার চাকরিপ্রার্থীদের অভিযোগের ভিত্তিতে প্রশাসন আদি গ্রুপ অফ কোম্পানি নামক অফিসটি তালাবদ্ধ করে দেওয়ার কিছুদিন পরেই পুনরায় চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা কাজটি চালু করে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অফিসের একজন কর্মকর্তার সাথে অফিসটি পুনরায় চালু হওয়ার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, আমাদের কর্মকর্তারা প্রশাসন এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে ম্যানেজ করার পরেই আমরা অফিসটি পুনরায় চালু করেছি।

অর্থাৎ অফিসটির এই কর্মকর্তার ভাষ্য অনুযায়ী বোঝা গেল তারা প্রশাসন এবং রাজনীতির দলীয় পরিচয় দিয়ে প্রতারণার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। অর্থাৎ তাদের প্রতারণা কাজে তারা প্রশাসন এবং রাজনীতিকে ব্যবহার করছেন। কিন্তু প্রশাসন এবং রাজনীতির নেতাদের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এ ধরনের প্রতারণা কে তারা কখনোই সমর্থন করেন না।

সুতরাং সাধারণ মানুষের সাথে যারা এই ধরনের প্রতারণা করবে তাদেরকে অবশ্যই আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। সরকার এ ধরনের প্রতারক এর ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এ ধরনের প্রতারকদের খপ্পরে পড়ে অনেক নিরীহ মানুষ সর্বস্বান্ত হয়েছেন ।

ভবিষ্যতে চাকরি দেওয়ার নামে সাধারণ মানুষের সাথে যাতে করে কেউ এ ধরনের প্রতারণা আর না করতে পারে সে জন্য প্রশাসনের নিকট এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here