যেভাবে প্রেমের প্রস্তাব দেয় মেয়েরা

0
306
যেভাবে প্রেমের প্রস্তাব দেয় মেয়েরা

হাঁটু গেরে বসে ছেলেরা মেয়েদেরকে আংটি দিয়ে প্রেমের বা বিয়ের প্রস্তাব জানাবে সেই দিনটার জন্য এখন আর কোনো মেয়েই অপেক্ষা করে থাকে না। বরং ছেলেদের কিছু বলার আগে মেয়েরাই সেই প্রস্তাব আগেভাগে দিয়ে দেয়। তা ছাড়া চিরাচরিত প্রথা থেকে একটু বাইরে বেড়িয়ে নতুন নিয়মে চলতেও বেশ ভালোই লাগে।

অনেকেই বলেন, ছেলেদের থেকে মেয়েদেরকেই মিষ্টি লাগে যখন তারা প্রেমের প্রস্তাব দেয় ছেলেদেরকে। তাই এবার দেখে নেওয়া যাক আলাদা আলাদা চরিত্রের মেয়েরা যেভাবে নিজেদের প্রেম প্রকাশ করবে প্রিয় মানুষটির কাছে।

❑ চুপচাপ চরিত্রের মেয়েরা
যে সব মেয়েরা একটু চুপচাপ থাকেন তাঁরা তাঁদের প্রিয় মানুষকে মনের কথা খুব সুন্দরভাবে বলতে পারেন। তার জন্য দরকার একটা ফাঁকা জায়গা। সেটা আপনার বাড়িও হতে পারে আবার তা বন্ধুর কোনো খামার বাড়িতেও হতে পারে। বাড়ির ছাদেই আয়োজন করুন প্রিয় মানুষটির জন্য সারপ্রাইজ। মোমবাতি দিয়ে সাজিয়ে লিখতে পারেন ‘‌ম্যারি মি?‌’‌ তবে সব আলো যেন সেই সময় বন্ধ থাকে। মোমবাতির নরম আলোতে আপনি হাঁটু গেরে বসে আংটি নিয়ে আপনার প্রিয় মানুষকে বিয়ের প্রস্তাব দিন। আপনার এই স্টাইল কোনোদিনও ভুলতে পারবেন না তিনি।

❑ ফিল্মি স্টাইলের যে মেয়েরা
যে সব মেয়েরা চান একটু নাটকীয়ভাবে নিজের প্রিয় মানুষকে ইমপ্রেস করতে তাঁদের জন্য এই আইডিয়াটা একদম পারফেক্ট। কবে আপনার সঙ্গে তাঁর প্রথম দেখা, তারপর থেকে আপনি তাঁর ব্যাপারে কতটা ভাবেন সবকিছু নিজের গলায় রেকর্ড করে নিন। এরপর নিজের প্রিয় মানুষের চোখ বন্ধ করে তাঁকে একটা ফাঁকা ঘরে নিয়ে আসুন। চালিয়ে দিন রেকর্ডিংটা। দেখবেন, রেকর্ডিং শেষ হওয়ার পর চোখ খুলে আপনাকেই খুঁজছে আপনার প্রিয় মানুষটি।

❑ বাস্তববাদী মেয়ে
যাঁরা কল্পনার জগতে নয়, বাস্তবকে বেশি মেনে চলেন তাঁরাও তাঁদের প্রিয় মানুষকে নিজেদের মতো করে বিয়ের প্রস্তাব দিতে পারেন। পিৎজ্জা রেস্তোঁরাতে গিয়ে কেচআপ সস আর ‌চিজ দিয়ে প্লেটে লিখে দিলেন ‘‌ম্যারি মি’‌? দেখবেন পিৎজ্জা খাওয়া ভুলে গিয়ে এক অদ্ভুত হাসি দেখা দেবে আপনার প্রিয় মানুষটির মুখে। তারপর পিৎজ্জা বক্স খুলে আংটি নিয়ে এসে (‌আংটির সঙ্গে যেন পিৎজ্জাও থাকে)‌ আপনি আপনার মনের কথা তাঁকে জানান। দেখবেন সারাজীবন আপনাকে পিৎজ্জা খাওয়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে দেবে আপনার প্রিয় মানুষটি।

সূত্র: ইন্টারনেট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here