অবশেষে করোনা মোকাবেলায় বাদশাহ শাহরুখ

0
77
অবশেষে করোনা মোকাবেলায় বাদশাহ শাহরুখ

আফজালুর ফেরদৌস রুমনঃ অবশেষে করোনা মোকাবেলায় বাদশাহ শাহরুখ। ভারতে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য এগিয়ে এসেছেন দেশের নামীদামী শিল্পপতি, ব্যবসায়ী, রাজনৈতিক নেতা-নেত্রী থেকে শুরু করে সকল স্তরের মানুষ। বলিউড বা দক্ষিনি তারকারাও এগিয়ে এসেছেন এই সমস্যায় দেশের জন্য কিছু করার উদ্যোগ নিয়ে।

বলিউডের অনেক তারকা যখন করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী কিংবা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের ত্রাণ তহবিল গুলোতে সাধ্যমতো সাহায্য করছেন বা নিজ উদ্যোগে নানা রকম দায়িত্ব নিজেরাই কাধে তুলে নিচ্ছেন এমন কঠিন পরিস্থিতিতে বলিউড কিং খান চুপ কেন!! দেশের জন্য কি তার কোন দায়িত্ব নেই!! এমন অজস্র রকমের সমালোচনা শুনতে হয়েছে তাঁকে। তবে দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য তার এগিয়ে আসার ঘোষনা এবং সেই সাহায্যের পরিমান জানার পরে সেই সকল সমালোচক এবং তাকে অপছন্দ করা মানুষজন মুখে কুলুপ এটেছেন।

এককথায়, শাহরুখ খান যা করলেন, অভিনেতা সত্ত্বার বাইরে গিয়েও দেশবাসী তাঁর এই মানবিক উদ্যোগের জন্য চিরকাল তাঁকে মনে রাখবে বলে বিভিন্ন সংবাদপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। আর এই জন্যই বোধহয় সেলুলয়েড এর বাইরেও বলিউডের বাদশা এখনও তিনিই রয়ে গিয়েছেন।

শাহরুখ খান তার ক্রিকেট টিম নাইট রাইডার্স ও প্রযোজনা সংস্থা রেড চিলিজের হয়ে পিএম এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী আর বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে মোটা অঙ্কের টাকা দিচ্ছেন।

এছাড়াও শাহরুখের ‘মীর ফাউন্ডেশন’ পক্ষ থেকে ৫০ হাজার পিপিই কিট দিচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গ আর মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে। উপরন্তু আলাদা করে আরও অর্থ সাহায্যের ব্যবস্থা করেছেন যাতে আগামী দিনগুলিতে বাংলাও মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলিতে যাতে তাদের ভেন্টিলেটরেরও আকাল না হয়।

মুম্বাই পুলিশের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে তাঁর সংস্থা প্রতিদিন ৩ লাখ খাবারের প্যাকেট বিলি করবে ভবঘুরে আর ভিক্ষুকদের মধ্যে। যাতে রাতে অভুক্ত থেকে যেনো কাউকে ঘুমোতে যেতে না হয়! এছাড়াও দিল্লির ২৫০০ দিন মজুরদের পরিবারগুলিতে প্রতি সপ্তাহে অন্তত আগামী ১ মাস বিনামূল্যে রেশন বিলি করার দায়িত্ব নিয়েছেন শাহরুখ নিজে।

উল্লেখ্য, বলিউড তারকারা প্রত্যেকেই নিজেদের সাধ্য়মতো সাহায্য করলেও এর আগে কিন্তু শাহরুখের মতো বহুমুখী সাহায্যের প্রস্তাব কেউ দেননি। শুধু বললেন, এই গোটা ভারত একটা পরিবার।

এছাড়াও ‘এক সাথ’ নামের একটি সংস্থার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে মীর ফাউন্ডেশন করোনার জেরে বেকার হয়ে যাওয়া মুম্বাইয়ের প্রায় সাড়ে ৫ হাজার দিন আনি দিন খাই পরিবারকে রোজ দু বেলা খাওয়ানোর দায়িত্ব তুলে নিয়েছে। অন্তত একমাস খাদ্য সরবরাহ করা হবে তাঁদের। উপরন্তু ২ হাজার প্লেট খাবার রোজ পৌঁছে যাবে হাসপাতাল আর জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত মানুষদের কাছে। যার সমস্ত ব্যায়ভার বহন করবেন শাহরুখ খান নিজে।

ব্যক্তিজীবনে শাহরুখ খান কখনোই তার চ্যারিটি নিয়ে কোথাও কোন কিছু বলেন না। তবে শাহরুখ খান নিয়মিত তার সংস্থার মাধ্যমে বিশাল অংকের চ্যারিটি করে থাকেন সেটি তার কাছের মানুষজন বেশ ভালোভাবেই জানেন। এমনকি ভারত থেকে চ্যারিটির জন্য কিছুদিন আগেই ইউরোপের একটি অর্গানাইজেশন তাকে পুরস্কৃত করেছেন।

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী অভিনেতার লিস্টে থাকা এই বলিউড সুপারস্টার শুধু অর্থ বা সম্পত্তির দিক থেকেই যে ধনী তেমনটা নয়, তার একটি সিনেমার জনপ্রিয় ডায়লগ ‘দিল হার কিসিকে পাস হোতা হ্যায়,লেকিন সব দিলওয়ালে নেহি হোতা’ এর মতো বাস্তব জীবনেও তিনি যে একজন ‘দিলওয়ালে’ তা এখন সবার সামনে প্রমানিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here