ওয়াজ মাহফিলে ভুল তথ্য বলায় আব্বাসীর বিরুদ্ধে চার্জশিট

0
524
ওয়াজ মাহফিলে ভুল তথ্য বলায় হুজুরের বিরুদ্ধে চার্জশিট

হেলিকপ্টার হুজুর হিসাবে খ্যাত জৈনপুরী পীর মাওলানা এনায়েতুল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ফতুল্লা মডেল থানায় করা মামলায় চার্জশিট দিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

আদালত সূত্র জানায়, মামলার তদন্ত সংস্থা সিআইডি ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস্ সামছ জগলুল হোসেনের আদালতে চার্জশিট জমা দিয়েছেন। গত মঙ্গলবার শুনানিকালে আগামী ২৭ জুন চার্জ গঠনের জন্য দিন ধার্য করেছেন আদালত। তবে এই মামলায় জামিনে আছেন মাওলানা আব্বাসী। ২০১৯ সালে ব্যবসায়ী কাজী ইমরুল কায়েস ফতুল্লা মডেল থানায় মাওলানা আব্বাসীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় কাজী ইমরুল কায়েস বলেন, এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী আমাকে ‘কাদিয়ানিদের দোসর’ আখ্যায়িত করে ওয়াজ মাহফিলে বিভিন্ন বক্তব্য দিয়েছেন মাওলানা এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী এবং তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হয়।

পরবর্তীতে মামলাটি তদন্ত করেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) নারায়ণগঞ্জ বিভাগ। মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে চার্জশিট দাখিল করেছে সিআইডি।

জৈনপুরী পীর মাওলানা এনায়েতুল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে এর আগেও ২০১৯ সালের ২৭ জুলাই বাংলাদেশ রেলওয়ের জমি দখলের মামলা হয়েছিল। তখন বাংলাদেশ রেলওয়ের ঢাকা বিভাগীয় এস্টেট অফিসের কানুনগো মো. ইকবাল মাহমুদ বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেছিলেন।

দায়েরকৃত এফআইআর (নং-ডিইও/ঢাকা/এফআইআর/নাঃগঞ্জ/৫৪৯৭/৬৯) সূত্রে জানা যায়, সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলী এলাকার মৃত নাছির উল্লাহ আব্বাসীর ছেলে অভিযুক্ত এনায়েত উল্লাহ আব্বাসী (জৈনপুরী পীর), ওবায়েদ উল্লাহ আব্বাসী ও নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসী অবৈধ ও বেআইনিভাবে নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন হাজিগঞ্জ লেভেল ক্রসিং সংলগ্ন রেললাইনের পূর্ব পাশে রেলওয়ের ভূমিতে অবৈধভাবে মাটি ভরাট করে সেমিপাকা কাঠামো নির্মাণ করে। নিষেধাজ্ঞা স্বত্বেও তারা অবৈধভাবে কাঠামো নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখে। সরকারি রেলওয়ে সম্পত্তি দখল ও আত্মসাতের অপরাধে দণ্ডবিধি অনুযায়ী ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here