জন্মনিরোধক ওষুধের সুবিধা-অসুবিধা

0
104
জন্মনিরোধক ওষুধের সুবিধা-অসুবিধা

জন্মনিরোধক ওষুধের সুবিধা-অসুবিধা। প্রেগন্যান্সি এড়ানো নিয়ে চিন্তিত? সেজন্যে অনেক পদ্ধতিই আছে। এসব পদ্ধতির সুবিধা যেমন আছে রয়েছে অসুবিধাও। অনেকেই এসকল বিষয় সম্পর্কে অবগত নন। তাই প্রাথমিকভাবেই বিষয়গুলো নিয়ে সচেতন হওয়া জরুরী।

চলুন জেনে নেই পিল সেবনের কি কি সুবিধা রয়েছে:

নিয়মিত ঋতুচক্র
অনিয়মিত মাসিকে পিল সেবন একটি কার্যকরী চিকিৎসা। এটি শরীরের হরমোনের অস্বাভাবিক তারতম্যকে স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়ে আসে এবং মাসিক নিয়মিত করে।

সিস্ট তৈরি হয়না
এটি ডিম্বাশয়ের সিস্ট তৈরিতে বাধা দেয়। এছাড়াও মাসিকের রক্তক্ষরণ কমিয়ে রক্তশূন্যতা রোধ করে।

জরায়ু সুরক্ষিত রাখে
এই পিল জরায়ু মুখের মিউকাসকে ঘন করে জরায়ুতে জীবাণুর প্রবেশ প্রতিহত করে, এভাবে এটি জরায়ুকে জীবানু সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে।

এবারে জেনে নেই কি কি সমস্যা বার্থ কন্ট্রোলে হতে পারে:

মাথাব্যথা
বার্থ কন্ট্রোলের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম জন্মনিরোধক পিল। যেকোনো বার্থ কন্ট্রোল পিল খেলেই মাথাব্যথা হয়৷ প্রোজেস্টিন আর এস্ট্রোজেন থাকলেই মাথাব্যথা হবে। এমনকি প্রোজেস্টিন থাকলেই মাথাব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

মাথা ঘুরানো
যৌনমিলনের পরেরদিন যদি পিল খাওয়া হয় তাহলে মাথা ঘুরানোর মত সমস্যাও হয়৷ বিশেষত পিলের এস্ট্রোজেন এই সমস্যা করে থাকে।

ঋতুচক্রের সমস্যা
বার্থ কন্ট্রোলের ফলে ঋতুচক্রের সমস্যা হতে পারে। অনিয়মিত পিরিয়ড, বা হুট করেই পিরিয়ড হওয়ার মতো সমস্যাও হতে পারে।

মুড সুইং
বার্থ কন্ট্রোল আপনার মেজাজও বদলে দিতে পারে৷ মুড সুইং এর সমস্যা আপনার সম্পর্কেও প্রভাব ফেলতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here