দর্শকের হৃদয়ে স্থান করে নেওয়াই বৃষ্টির মূল লক্ষ্য

0
137
দর্শকের হৃদয়ে স্থান করে নেওয়াই বৃষ্টির মূল লক্ষ্য

ঢাকার অদূরে টাঙ্গাইলের দূরন্ত এক কিশোরী রাবিনা বৃষ্টি। সেই দূরন্ত কিশোরী আজ চিত্রনায়িকা। ২০০৭ সালে পরিচালক আবুল হোসেন খোকন ‘মধুর প্রেম’ ছবির মধ্য দিয়ে রুপালি র্পদায় অভিষেক হয়। যখন বাংলাদেশের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নায়িকা সঙ্কট চলছে ঠিক তখনি বৃষ্টির আবির্ভাব ঘটে।

আকর্ষণীয় চোখ, ফটোজনিক চেহারা নিয়ে বড় পর্দায় কাজ করছেন এ অভিনেত্রী।

রাবিনা বৃষ্টি বলেন, আমি মঞ্চ নাটক থেকে ধীরে ধীরে চলচ্চিত্র জগতে এসেছি। আমার স্বপ্ন সিনেমা নিয়ে কাজ করা। যার মাধ্যমে লক্ষ্য কোটি দর্শক হৃদয়ে স্থান করে নেওয়াই আমার মূল লক্ষ্য।

তিনি আরও বলেন, চেষ্টা আর কমিটমেন্ট ঠিক থাকলে যে কেউ বহুদূর যেতে পারে, আমার চেষ্টা ও কমিটমেন্ট ঠিক থাকায় আশা করছি যে লক্ষ্য নিয়ে বড় পর্দায় কাজ করছি তা ধীরে ধীরে বাস্তবে রূপান্তরিত হবে।

তিনি বলেন, অনেকে হুট করে সিনেমায় এসে আবার হারিয়ে যায়। কারণ তাদের আগে থেকে তেমন অভিজ্ঞতা নেই কিন্তু আমি সে ক্ষেত্রে ভিন্ন। আমি বেশ কিছু ছবিতে কাজ করেছি। তবে আমি চাই না ১০ টা ছবি করতে আমি চাই বছরে একটা ছবি করতে।

বৃষ্টি বলেন, অনেক কাজের অফার পাচ্ছি, তা ফিরিয়ে দিচ্ছি, গল্প পছন্দ হচ্ছে না। প্রচুর ওয়েব সিরিজেরও অফার পাচ্ছি। আমি কাজগুলো করব কিনা তা নিয়ে চিন্তিত।

রাবিনা বৃষ্টি বলেন, মানুষ হাজার-হাজার ইউটিউব চ্যানেলের জন্য ভিডিও চিত্র বানাচ্ছেন, কিন্তু দেখার মতো কেউ নাই। ওয়েব সিরিজের প্রতি আগ্রহ আছে আমার। তবে ওয়েব সিরিজে যদি কাজ করি, তাহলে ভালো গল্প, ভালো চরিত্র, ভালো পরিচালক ও ভালো সহশিল্পী থাকতে হবে। তেমনি চরিত্রটি আমার সঙ্গে মানানসই হতে হবে।

বৃষ্টির মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিগুলোর মধ্যে আছে- মেশিনম্যান, দুইদিনের দুনিয়া, বস্তির ছেলে কোটিপতি, বাংলা ভাই, দাবাং, চার অক্ষরে ভালোবাসা, মনের অজান্তে, রাজা ৪২০, মার ছক্কা, এবং সাহসী হিরো আলম ইত্যাদি।

তার অভিনীত মুক্তির মিছিলে রয়েছে, মধুর প্রেম, ভালবাসার চ্যালেঞ্জ, রাঙা মন, লাভ ইন কোরিয়া, রঙিন পৃথিবী, ও আগুন আর কতটুকু পুড়ে।

এতগুলি ছবিতে অভিনয় করার পর তিনি প্রযোজক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন। ‘মনের অজান্তে’ ছবিটি তিনি প্রযোজনা করেছেন। সিনেমা প্রযোজনার পাশাপাশি ধারাবাহিক নাটকও প্রযোজনা করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here