একুশে বইমেলায় নিশাত প্রাপ্তির ‘নরক নন্দিনী’

0
208
একুশে বইমেলায় নিশাত প্রাপ্তির ‘নরক নন্দিনী’

তরুণ লেখিকা নিশাত তাবাস্মুম প্রাপ্তির তৃতীয় বই ‘নরক নন্দিনী ‘ প্রকাশিত হয়েছে বাংলা একাডেমির একুশে বইমেলাতে। বাস্তবধর্মী এ উপন্যাসটি প্রকাশ করেছে ছায়াবীথি প্রকাশনী। পাওয়া যাচ্ছে বই মেলার ২৮০-২৮২ নং স্টলে।

নেত্রকোণা জেলার নিশাত তাবাস্মুম প্রাপ্তি ছোটবেলা থেকেই সাহিত্যের প্রতি ভালবাসায় লেখছেন নিয়মিত গল্প, কবিতা, উপন্যাস। মাত্র ৯ বছর বয়সেই প্রকাশিত হয় প্রাপ্তির প্রথম কাব্যগ্রন্থ, ১৭ বছর বয়সে ময়মনসিংহ মুসলিম গার্লস কলেজে পড়াকালীন সময়ে প্রকাশ হয় তার প্রথম সাইন্স ফিকসন উপন্যাস ‘চাইল্ড একশন’। তারই ধারাবাহিকতায় এ বছরের একুশে বই মেলায় প্রকাশিত হয়েছে বাস্তবধর্মী উপন্যাস ‘নরকের নন্দিনী’

এটি একটি বারো বছরের কিশোরীর অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার একটি বাস্তবধর্মী উপন্যাস। কন্যা জায়া জননী। একজন নারীকে সমাজ কিছু অভিধা দেয়। কখনো কখনো সমাজের দুষ্টক্ষত যখন দগদগে ঘায়ে পরিণত হয়। সেখানে থেকে একজন নারীর কলংকিত পরিচয়ও তৈরি করা যায়।

যখন কোন নারী সফল হয় তার পরিচয় হয় নারীত্ব দিয়ে,আর যখন কেউ ঝড়ে পড়ে তার পরিচয় হয় সতীত্ব দিয়ে। সমাজের ঘাত-প্রতিঘাত আর পোড় খাওয়া একটি নারীর চারপাশে ঘিরে থাকে কিছু নারীরূপী ডাইনি আর পুরুষরূপী দাঁতল সরীসৃপ।

নারী সত্ত্বা পেলেই হলো, সে সাত বছরের কন্যা হোক কিবাং বারো বছরের কিশোরী। অন্ধকারের চোরাগলিতে নারী দেহ মানেই ব্যবসার বাটখারা। যেখানে শকূনেরা ছিড়ে খায় মানুষের সুখ আর সত্ত্বাকে। জীবন সেখানে নরকে পতিত একটা মৃতদেহের গল্প। সেই খরব অন্ধকারে লুকায়িত।

আমাদের শিক্ষা কি আমাদের অধিকার নিশ্চিত করছে পারছে? আইন কি আমাদের জীবনে সুরক্ষার পথ বাতলে দিচ্ছে? নাকি আইন সুবিধা বাদীদের তৈরি সুবিধা চক্র যার ভুক্তভোগী নিচু তলার মানুষ ন্যায়-অন্যায়ের মাত্রা যখন সমতা হারিয়ে ফেলে তখন প্রশ্ন উঠে সেই জাতীর শিক্ষা, নৈতিকতা,ধর্মীয় মূল্যবোধ কিংবা সমাজ ব্যবস্থার উপর।

নীতিহীনতার উগ্রমাত্রা যখন র‍্যাগিং,মাদতকা,শিক্ষা বেচাকেনা আইনের ব্যক্তিকেন্দ্রীক দাসত্ব কিংবা দেহ ব্যবসায় মহামারী রূপ ধারণ করে তখন তো সে জাতীকে প্রশ্নবিদ্ধ হতেই হবে।আমি নিজেও সেই প্রশ্নের সম্মুখে দাড়িয়ে লজ্জিত।

“নরক নন্দিনী” আমাদের অসুস্থ সমাজের একটি দূষিত রূপ। একটা কিশোরী কখনও কখনও যোদ্ধাতেও পরিণত হয় নিজের অস্তিত্ব টিকাতে। সে কি পারবে অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার পক্ষে জয়ী হতে? কি হবে সেই কিশোরীর?

জানতে পড়ুন নিশাত তাবাসসুম প্রাপ্তির দ্বিতীয় উপন্যাস “নরক নন্দিনী”। পাওয়া যাচ্ছে একুশে বই মেলায় ছায়াবীথি প্রকাশনীর ২৮০,২৮১,২৮২ নাম্বার স্টলে। কিংবা রকমারি থেকে অর্ডার করে পেতে পারেন এই অনন্য উপন্যাসটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here