প্রশংসিত ‘ভিন্ন জনস্রোত’

0
69
প্রশংসিত 'ভিন্ন জনস্রোত'

আফজালুর ফেরদৌস রুমনঃ ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসায় পালত হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস৷ আমাদের বাঙালিদের কাছে এই দিনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দিন হিসেবে প্রাধান্য পেয়ে আসছে বরাবরই।

ভাষা’র জন্য রক্ত দেয়া পৃথিবীর একমাত্র জাতি হিসেবে দিনটি একই সাথে গর্বের তেমনি শোকের। দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে প্রতিবছর নিউজপেপার, ম্যাগাজিন, রেডিও, টেলিভিশনে এই দিনটিকে উদ্দেশ্য করে নানা রকম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ে থাকে।

অনেক আয়োজনের মধ্যে এবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে প্রচারিত হয়েছে একক নাটক ‘ভিন্ন জনস্রোত’। জামাল হোসেন রচিত এই নাটকটি পরিচালনা করেছেন ইয়ামিন এলিন। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা গোলাম কিবরিয়া তানভীর, পূর্ণিমা বৃষ্টি, দিলারা জামান, করোভি মিজান, শিল্পী সরকার, নরেশ ভূইয়া, জিয়াউল কিসলু, আবদুল্লাহ রানা প্রমুখ।

ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে নির্মিত এই নাটকটি ইতিমধ্যে দর্শকদের কাছে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে। নাটকটিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার৷ আলোচিত এবং জনপ্রিয় অভিনেতা তানভীর। প্রচারের পর থেকেই সহকর্মী এবং ভক্তদের কাছ থেকে প্রশংসা পাচ্ছেন তিনি। এমন একটি কাজের সাথে যুক্ত থাকা এবং প্রশংসা পাবার পরে নিজের অনুভূতি জানিয়েছেন তিনি।

তানভীর জানান,’ভিন্ন জনস্রোত’ নাটকটি ভাষা দিবসকে কেন্দ্র করে নির্মাণ করা হয়েছে। দারুণ একটি গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে এটি। বিষেষদিনে এমন একটি গল্পে কাজ করতে পেরে খুব ভালো লাগছে। কাজ করার সময় থেকেই মনে হচ্ছিল যে এই রকম গল্প, লোকেশন ও নির্মাণ দর্শকদের ভালো লাগবে। আমাদের কষ্ট এবং কাজের প্রতি ভালোবাসা বিফলে যায়নি। অনেকেই নাটকটি দেখে আমাকে ব্যক্তিগত ভাবেই তাদের ভালোলাগার কথা জানিয়েছে। একজন অভিনেতা হিসেবে এটাই অনেক বড় পাওয়া।

জামাল হোসেনের গল্প অবলম্বনে ‘ভিন্ন জনস্রোত’নাটকটি পরিচালনা করছেন ইয়ামিন এলিন। একটি রাত এবং চারটি দিন প্রায় ৮০ জন অভিনয় শিল্পী এবং ৪৩ জন কলাকুশলীর শীতের মধ্যেই অমানুষিক কষ্ট এবং ভালোবাসা’র ফসল ‘ভিন্ন জনস্রোত’। পরিচালকের মতে, লেখক জামাল হোসেন বরাবরের মত এবারও একটি জাতীয় জাগরণ ও ইতিহাসকে অত্যন্ত ঘটনাবহুল ভাবে উপস্থাপন করেছেন।

ভালোবাসা,দেশাত্মবোধ এবং ৭১ সালকে কিভাবে এক সুতোয় গাঁথা হয়েছে তা এই গল্প না পড়লে কেউ বুঝবে না। একটি পরিবার থেকে তিনি গোটা সমাজের ওপর আলোকপাত করেছেন। উল্লেখ্য গল্পটি পরিচালক হাতে পেয়েছিলেন গত বছর।

পরবর্তীতে এই অসাধারন গল্পটিকে দর্শকদের সামনে নিজের সততা এবং ভাষা শহীদদের ত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে উপস্থাপন করেছেন তিনি। উল্লেখ্য কিছুদিন আগেই উত্তরা, পুবাইল ও গাজীপুরে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here