চিত্রনায়িকা ববি-বাস্তব জীবনেও নায়িকা

0
308
চিত্রনায়িকা ববি-বাস্তব জীবনেও নায়িকা

আফজালুর ফেরদৌস রুমনঃ সারাবিশ্বই করোনার ভয়াল থাবায় আতংক এবং ভয়াবহ অবস্থার মধ্য দিয়ে দিন পার করছে। সারাবিশ্বে প্রায় ১২ লাখ মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ৬০ হাজারের বেশি মানুষ মৃত্যুবরন করেছেন। বাংলাদেশেও ইতিমধ্যে হানা দিয়েছে করোনা ভাইরাস। দেশে এখন পর্যন্ত ৮৮জন করোনা আক্রান্ত মানুষ পাওয়া গিয়েছে। এর মধ্যে মৃত্যুবরন করেছেন ৯ জন।

সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৫৫ জন। যেহুতু এখনো কোনো প্রতিষেধক আসে নাই তাই বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশেও লকডাউনের মাধ্যমে এই ভাইরাসের সাথে অলিখিত এক যুদ্ধ চলছে। আর এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষজন। ভাইরাসটি প্রতিরোধ করার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, অফিস, আদালত সবকিছুই আগামী ১৪ই এপ্রিল পর্যন্ত ঘোষনা করা হয়েছে। তাই রোজগার না থাকায় নিম্ন আয়ের মানুষজন মহাবিপদে তাদের দিন পার করছেন।

এমন অবস্থায় দেশের সরকারি বেসরকারি নানা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগেও অনেক মানুষ গরীব এবং দুস্থ মানুষের পাশে এসে দাড়িয়েছে। বাদ যায়নি রুপালি পর্দার তারকারাও। দেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে তারাও এগিয়ে এসেছেন নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী। তেমনই একজন তারকা চিত্রনায়িকা ববি।

আমাদের দেশের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী জানান, সংবাদ মাধ্যমে মানুষের অসহায়ত্ব দেখার পর নিজেকে সামলে রাখতে পারিনি। তাই নিজের ত্রাণ নিয়ে এগিয়ে এসেছি। তাদের কষ্ট দেখে মৃত্যুভয় কাজ করছে না। শুধু একটা কথাই বার বার মনে হয়েছে তাদের মুখে হাসি ফোটাতেই হবে। খাবারের অভাবে যেন একটি প্রাণও অকালে হারিয়ে না যায় সেটিই ভেবেছি।

গত বছর বাবাকে হারিয়েছেন ববি। তার বাবাও সব সময় বিপদে মানুষের পাশে দাঁড়াতেন। ববি বলেন, আজ বাবা বেঁচে থাকলে মানুষের জন্য আরও বেশি করতেন। বাবা-মাকে হারানো সন্তানরাই কেবল পিতা-মাতার অভাব বুঝতে পারে। আমি বাবার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছি।

ববি আরও বলেন, আমরা নিজেরাই কেবল নিজেদের এই বিপদ থেকে রক্ষা করতে পারি। কয়েকটা দিনের ব্যাপার মাত্র। সবাই একটুখানি সতর্ক হলে বেঁচে যাবে হাজারও প্রাণ। আমাদের বিশ্বের অন্য দেশের কাছে থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত। উন্নত দেশগুলো করোনা মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে। আমাদের এখন আল্লাহ কাছে দোয়া চাওয়া আর ঘরে থাকার কোনও বিকল্প নেই।

বিজলী এবং নোলক খ্যাত এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী আগে থেকেই নানা সামাজিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। যদিও সবার চোখকে ফাকি দিয়ে কিছুটা নীরবে নিভৃতেই তিনি এই কাজগুলো করতে পছন্দ করেন তিনি। এই মুহূর্তে করোনা মোকাবেলার জন্য দেশের মানুষকে করোনার ভয়াবহতা থেকে রক্ষায় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে নানা বার্তাও দিয়েছেন।

জানা যায় দিনের বেলা নামাজ আর কুরআন পড়েই সময় কাটছে তার। আর এর মাঝেই ছাদে নিজের বাগানের নানা গাছের পরিচর্যা আর দেখভালও করছেন তিনি। মা এবং বোন অস্ট্রেলিয়াতে আছেন। তাই তাদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ কর হচ্ছে। আর রাত হলেই ত্রান নিয়ে অসহায় মানুষের কাছে ছুটছেন। গেল কয়েকদিন ধরেই মানবতার খাতিরে এই কাজটি অব্যাহত রেখেছেন তিনি। এছাড়া নিজের জন্মস্থান জামালপুরের মানুষদেরও কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য আর সব সেক্টরের মতো বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির সকল কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তাই সব শিল্পীরাই এখন বাসায় পরিবারের সাথে সময় কাটাচ্ছেন। লকডাউনের কারন সব কাজ পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। এই মাসেই সৈকত নাসির পরিচালিত ‘আকবর’ সিনেমার শুটিং হওয়ার কথা ছিল। সেটিও পিছিয়ে গিয়েছে। ববির বিপরীতে এই সিনেমায় নাম ভমিকায় অভিনয় করছেন চিত্রনায়ক ইমন।

এছাড়া এই মাসেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল চিত্রনায়িকা ববি অভিনীত চলচ্চিত্র ‘বৃদ্ধাশ্রম’। সমাজের বাস্তব কিছু ঘটনার আলোকে নির্মিত এই সিনেমাতে ববির বিপরীতে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী এস ডি রুবেল। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন স্বপন চৌধুরী। দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সিনেমাটির মুক্তির নতুন তারিখ ঘোষণা করা হবে বলে জানা গেছে।

কিছুদিন আগেই ‘এলিট মেহেদী’র নতুন একটি বিজ্ঞাপনে মডেল হয়েছেন ববি। বি হ্যাপি এন্টারটেনমেন্টের ব্যানারে এটি নির্মাণ করেছেন তরুণ নির্মাতা রাকিব আহমেদ। জানা গেছে, ঈদের আগে থেকে দেশের প্রায় সবগুলো টিভি চ্যানেল ও অনলাইনে বিজ্ঞাপনটি প্রচার হবে। এছাড়াও সম্প্রতি কলকাতায় ববির ‘রক্তমুখী নীলা’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। উল্লেখ্য এটি কলকাতায় তার প্রথম চলচ্চিত্র।

ভয় এবং আতংক নিয়ে এও শহর যখন ঘুমায়, সেই ঘুমন্ত শহরে পেটে ক্ষুধা নিয়ে ঘুমানো মানুষের জন্য খাবার নিয়ে হাজির হন ববি। এরই মধ্যে রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মিরপুরের বেশ কিছু এলাকা, কমলাপুর, মগবাজারে নিজ হাতে ত্রাণ সামগ্রী অসহায়দের মাঝে পৌঁছে দিয়েছেন ববি। সেলুলয়েডের ঝলমলে দুনিয়ার চিত্রনায়িকা ববি পর্দার বাইরেও বাস্তব জীবনেও যে একজন শক্ত মনের মানবিক মানুষ তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। শুভকামনা এবং শ্রদ্ধা রইলো আমাদের দেশের এই গুনী অভিনেত্রীর জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here