ক্র্যাবের সাবেক সহ-সভাপতিকে প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন

0
29
ক্র্যাবের সাবেক সহ-সভাপতিকে প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সাবেক সহ-সভাপতি ও ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদক মনজুরুল বারী নয়নকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে ক্র্যাব। শনিবার দুপুরে ডিআরইউ চত্বরে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন ক্র্যাব সভাপতি মিজান মালিক।

ক্র্যাবের দফতর সম্পাদক ইসমাঈল হুসাইন ইমুর পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, একজন কাস্টমস কর্মকর্তা হয়ে রাতারাতি কিভাবে ২০০ কোটি টাকার মালিক হলেন ড. তাজুল ইসলাম। তার কাছে লাইসেন্সকৃত অস্ত্রও রয়েছে। একজন সরকারি কর্মকর্তা কিভাবে এ অস্ত্র পেলেন তা খতিয়ে দেখতে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন নেতৃবৃন্দ। পাশাপাশি তার সম্পদ খতিয়ে দেখতে দুদক কর্মকর্তাদের আহ্বান জানানো হয় মানববন্ধনে।

অবিলম্বে ওই কাস্টমস কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। বক্তারা আরো বলেন, কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুলের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে মনুজুরুল বারী নয়ন সংবাদ প্রকাশ করায় তার অফিসে গিয়ে অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখানো হয়।

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তাকে হেয় করা হয়েছে। একজন সাংবাদিককে অস্ত্রের ভয় দেখানো ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধরনের কর্মকাণ্ডের ঘটনায় তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করার দাবি জানান সাংবাদিক নেতারা। আগামী সাতদিনের মধ্যে দুর্নীতিবাজ কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুলের বিরুদ্ধে দৃশ্যমান কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে পরবর্তীতে আরো কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু, বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি আবু সালেহ আকন, সাবেক সহ-সভাপতি সাব্বির মাহমুদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বিকু, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মামুনুর রশিদ, আব্দুল লতিফ রানা, ডিআরইউর সাবেক যুগ্ম সম্পাদক জামিউল আহসান শিপু, কল্যাণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবলু, ক্র্যাবের যুগ্ম সম্পাদক হাসান উজ জামান, আন্তর্জাতিক সম্পাদক রুদ্র রাসেল, ক্র্যাব সদস্য এস এম ফয়েজ প্রমুখ।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ক্র্যাবের সহ-সভাপতি নিত্য গোপাল তুতু, ক্র্যাবের অর্থ সম্পাদক মো. এমদাদুল হক খান, সিনিয়র সদস্য গাফফার মাহমুদ, শাজাহান আকন্দ শুভ, দেব দুলাল মিত্র, এসহান পারভেজ তুহিন, মহসিনুল করিম লেবু, কামাল হোসেন তালুকদার, ক্র্যাবের সাবেক অর্থ সম্পাদক এসএম দেলোয়ার হোসেন, আবু হেনা রাসেল, ক্র্যাব সদস্য সাইফুল ইসলাম মন্টু।

উল্লেখ্য, গত ১৪ ডিসেম্বর ‘যুবরাজের সাতকাহন’ ও গত ১৫ ডিসেম্বর ‘নামে-বেনামে শত কোটি টাকার মালিক কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলাম’ শিরোনামে ঢাকা প্রতিদিনে পৃথক দুটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদ প্রকাশের পর থেকেই দুর্নীতিবাজ কাস্টমস কর্মকর্তা ড. তাজুল ইসলামসহ তার অনুসারিরা নানাভাবে ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদক ও বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সাবেক সহ-সভাপতি মনজুরুল বারী নয়নকে প্রাণনাশের হুমিক প্রদান এবং ভয়ভীতি দেখানো/প্রদর্শনের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কুৎসা রটিয়ে সুনাম ক্ষুণ্নের অপচেষ্টা চালিয়ে আসছে।

এমন হুমকির ঘটনায় হুমকিদাতাদের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যেই তেজগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়রি (জিডি নং-৮২৯, তাং-১৫-১২-২০২১ইং) করা হয়েছে।

এসব ঘটনায় ইতোমধ্যেই তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) ও বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসেয়েশন (ক্র্যাব)। হুমকিদাতাদের বিরুদ্ধে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছে সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here